Alexa

বিমানকে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের অভিমত মুহিতের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বাজেট পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। 

ঢাকা: বিমানকে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তর অপরিহার্য হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। 

তিনি বলেন, বিমানে আমরা যথেষ্ট বিনিয়োগ করে চলেছি, কিন্তু বিমান এখনো তেমন ভালো সেবাদান করতে সক্ষম হয়নি। বিমানকে সরকারি সংস্থার পরিবর্তে একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তর করার উদ্যোগটি আমার মনে হয় এ প্রেক্ষাপটে অপরিহার্য।

নির্বাচনের বছরে বাজেটে উড়োজাহাজ কেনার ব্যাপারে সুখবর দিয়েছে সরকার। আকাশপথে যাত্রী সেবা বৃদ্ধি করতে ২০১৯ সালের মধ্যে চারটি বোয়িং ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ সংগ্রহ ও দু’টি ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ কেনার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। 

প্রস্তাবিত এই ব্যয় বিদায়ী ২০১৭-১৮ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ২৫ শতাংশ বেশি। 

বৃহস্পতিবার (৭ জুন) জাতীয় সংসদে চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। দুপুর পৌনে একটার দিকে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এই অধিবেশন শুরু হয়।

এর আগে অর্থমন্ত্রী প্রথা অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংসদ অধিবেশন কক্ষে যান। পরে অনুমতি নিয়ে প্রথমে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পেশ করেন। এরপর শুরু করেন ২০১৮-১৯ সালের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন।

বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, নিরাপদ বেসামরিক বিমান চলাচল, যাত্রী ও মালপত্র পরিবহনের জন্য হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও আঞ্চলিক বিমানবন্দরগুলোর সক্ষমতা ও সেবা-সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করছি। পিপিপি’র আওতায় খান জাহান আলী বিমানবন্দর নির্মাণের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণ প্রকল্পের সম্ভাব্যতা সমীক্ষার প্রায় ৯০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে বলেও জানান তিনি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৫ ঘণ্টা, জুন ০৭, ২০১৮
এমআইএস/এসআই

বিশ্বকাপে ২৪ জুনের ম্যাচগুলো
মেসিডোনিয়ায় নাম পরিবর্তন চুক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ 
রাজধানীতে অ‍াগ্নেয়াস্ত্রসহ ৫ ডাকাত আটক
ত্রিপুরায় বিজেপি কর্মীকে গুলি করে হত্যা
ড্রাইভিং সিটে সৌদি নারীরা