Alexa

ট্রুডোকে ‘খুবই অসৎ ও দুর্বল’ বললেন ট্রাম্প

‌আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফাইল ফটো

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে ‘খুবই অসৎ’ এবং ‘দুর্বল’ বলে আখ্যায়িত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

শনিবার (৯ জুন) ট্রুডোকে অভিযুক্ত করে ট্রাম্প বলেন, ট্রুডো মিথ্যা বিবৃতি তৈরি করেছেন। যুক্তরাষ্ট্র জি-৭-এর কোনো প্রজ্ঞাপন বা বিবৃতি অনুমোদন করেনি।

টুইটারে ট্রাম্প লিখেছেন, আমি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদের নির্দেশ দিয়েছি যাতে প্রজ্ঞাপনটি অনুমোদন না করে। সংবাদ সম্মেলনে জাস্টিনের মিথ্যা বিবৃতির ওপর ভিত্তি করেই এই নির্দেশ দিয়েছি। প্রকৃত ঘটনা হলো, কানাডা আমাদের কৃষক, শ্রমিক এবং কোম্পানিগুলো থেকে বড় অংকের শুল্ক আদায় করে।

দ্বিতীয় আর একটি টুইটে ট্রাম্প বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো জি-৭-এর বৈঠকে খুবই বিনয়ী এবং নরম হওয়ার মতো অভিনয় করছিলেন, যাতে আমি চলে যাওয়ার পর সংবাদ সম্মেলনে ‘মার্কিন শুল্ক এক ধরনের অপমান’ এবং ‘তা চলতে দেওয়া উচিত নয়’ এরকম বিবৃতি দিতে পারেন। সে খুবই ‘অসৎ ও দুর্বল’। 

এর ঠিক পরপরই ট্রুডো বলেন, আমি খুবই আনন্দিত যে আমরা সাতটি দেশ মিলে একটি যৌথ প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করেছি। তারা (যুক্তরাষ্ট্র) এতে স্বাক্ষর করেছে। তবে ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র সিদ্ধান্ত বদলাবে এবং শেষপর্যন্ত স্বাক্ষর করবে না।

জি-৭ এর প্রজ্ঞাপনে বাণিজ্য, অর্থনৈতিক উন্নতি, জাতীয় নিরাপত্তা এবং স্থিতিশীলতাসহ কিছু যৌথ স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়কে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। এর একটি অংশে বলা আছে, আমরা মুক্ত, ন্যায্য, যৌথ উপকারভোগী বাণিজ্য এবং বিনিয়োগকে স্বীকৃতি দিচ্ছি। ফলে তৈরি হবে পারস্পরিক সুবিধা। আর এগুলোই অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টির চাবিকাঠি।

এছাড়া শনিবার (৯ জুন) এক সংবাদ সম্মেলনে কানাডা, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও মেক্সিকোর স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর ট্রাম্প প্রশাসনের শুল্ক বৃদ্ধির প্রতিক্রিয়ায় ট্রুডো বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর শুল্ক আরোপের জবাবে ১ জুলাই থেকে কানাডা প্রতিদানমূলক উপায়ে এগিয়ে যাবে। 

তিনি আরও বলেন, আমি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে খুব স্পষ্ট করে জানাতে চাই, আমরা খুব খুশি হয়ে এটা করছি এমন নয়। তবে নিশ্চিতভাবেই আমরা এটা করবো। কানাডিয়ানরা ভদ্র, যুক্তিবাদী। কিন্তু আমরা তর্জন গর্জন করিনা।

ট্রাম্প শনিবারের সংবাদ সম্মেলনের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য নিয়ে প্রজ্ঞাপন সম্পর্কে জানান, অন্য দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের থেকে বাণিজ্যে সুবিধা নিচ্ছে এমনটা তিনি দেখতে চান না।

এদিকে কানাডার প্রধানমন্ত্রীর দফতর ট্রাম্পের টুইটের জবাবে বলেন, জি-৭ সম্মেলনে ট্রুডো নতুন কিছুই বলেননি। তিনি এর আগেও এই মন্তব্যগুলো করেছেন।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর দফতরের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, জি-৭ সম্মেলনের অর্জনগুলোর দিকে আমাদের সম্পূর্ণ ফোকাস রয়েছে। ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যক্তিগত বা প্রকাশ্য আলাপচারিতার সময়ও প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো নতুন কোনো মন্তব্য করেননি। 

বাংলাদেশ সময়: ১১২৮ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০১৮
এএইচ/এনএইচটি

নাফনদীতে বিজিবি-বিজিপি’র যৌথ টহল
বদলগাছীতে ট্রাকের ধাক্কায় শিশু নিহত
পরাজয় নিশ্চিত জেনে নির্বাচন থেকে পালাতে চায় বিএনপি
প্রেমে পড়লে পানিও শরবত লাগে: রণবীর কাপুর
খেলা দেখতে ব্রাজিল-বাড়িতে ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত