Alexa

দেশে দেশে রমজান

মালয়েশিয়ানদের পছন্দ ‘বুবুর লাম্‌বুক’

নওশাদ হক তিয়াস, ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ইফতারে মালয়েশিয়ানদের পছন্দের খাবার ‘বুবুর লাম্‌বুক’,ছবি: সংগৃহীত

মুসলিম প্রধান দেশ হলেও বহু জাতির বসবাস মালয়েশিয়ায়। তবে রমজান উদযাপনে যোগ দেন দেশটির সবাই। রমজান মাসের প্রথম দিন মালয়েশিয়ার কোনো কোনো রাজ্যে রাজার পক্ষ থেকে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়। মাসের বাকি দিনগুলোও চলে পবিত্রতা ও নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্যদিয়ে।

এ মাসে ইফতারের জন্য বৈচিত্র্যময় খাবারের সমাগমে জমজমাট হয়ে ওঠে মালয়েশিয়ার বাজারগুলো। দিনের কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে একবার হলেও স্থানীয় বাজারে ঢুঁ দিতে দেখা যায় সবাইকে। কারণ এসময় মালয়েশিয়ার বাজাগুলোতে এমন সব খাবার ও পানীয় পাওয়া যায় যা বছরের অন্য সময় মেলে না।

ইফতারে মালয়েশিয়ার একটি জনপ্রিয় খাবারের নাম ‘বুবুর লাম্‌বুক’। দেশটির মসজিদগুলোতে অনেক মানুষের জন্য একসঙ্গে রান্না হয় খাবারটি। এতে ব্যবহৃত হয় নারিকেলের দুধ, মাংস, আচার, মসলাসহ নানা উপাদান। দেখতে অনেকটা হালিমের মতো, তবে রংটা সাদা। এটি একইসঙ্গে মজাদার ও পুষ্টিকর।

মালয়েশিয়ানদের আরেকটি পছন্দের ইফতার ‘নাসি কেরাবু’ নামের নীল ভাতের সঙ্গে হরেক তরকারির এক প্রকার প্ল্যাটার। সাধারণত বাজার থেকে কিনতে হয় এ খাবারটি। বাজারে আরও পাওয়া যায় নানা ধরনের কাবাব। আস্ত গরু কিংবা খাসি গ্রিল করতেও দেখা যায় কোনো কোনো স্থানে।

নিজেদের ঐতিহ্যবাহী খাবারগুলোই প্রাধান্য পায় মালয়েশিয়ানদের ইফতারের টেবিলে। বাড়িতে বাড়িতে রান্না হয় ‘পুলুত পাংগাং’ (কলাপাতার ভেতর রান্না করা ভাত), ‘কারা বেরালাউক’ নামের এক প্রকার চিংড়ির বড়া ও বিভিন্ন জাতের হালুয়া। আরও রান্না হয় বিভিন্ন সবজি ও মাছ-মাংসের স্যুপ। পানীয় হিসেবে থাকে আখ ও মালবেরির শরবত। 

রমজান এমন একটি মাস যা মালয়েশিয়াবাসীদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা যোগায়। ইবাদতের মাধ্যমে সারা বছরের কর্মব্যস্ত জীবনটা একটু গুছিয়ে নেন সবাই। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪১২ ঘণ্টা, মে ২১, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

নিয়ামতপুরে বাসের ধাক্কায় পথচারীর মৃত্যু 
যাত্রীর অভাবে চলতি বছর ২০ হজ ফ্লাইট বাতিল
১৮ আগস্ট ব্যাংক খোলা থাকবে যেসব এলাকায় 
‘জীবনে একবারও সিগারেট আর পান খাইনি’
‘জাতির জনককে অস্বীকারকারীদের সঙ্গে আলোচনা নয়’