Alexa

রমজানে ডাবের পানি দিয়ে ‘রোআদাহ ভিলান’ করেন মালদ্বীপবাসী

নওশাদ হক তিয়াস, ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মালদ্বীপের ইফতারের আয়োজন। ফাইল ফটো

ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপ। মুসলিম প্রধান এ রাষ্ট্রের প্রায় সব সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধর্মকেন্দ্রিক। তাই রমজান মাস ঘিরেও দেশটির অধিবাসীদের মধ্যে দেখা যায় বাড়তি আয়োজন। আকাশে রমজানের চাঁদ দেখার পর থেকেই শুরু হয়ে যায় মালদ্বীপবাসীর সিয়াম সাধনার প্রস্তুতি।

মালদ্বীপে ইফতারকে বলা হয় ‘রোআদাহ ভিলান’। বিশ্বের প্রায় সব মুসলিমপ্রধান দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে মালদ্বীপের জনগণের ইফতারের টেবিলে শোভা পায় খেজুর। দেশটিতে অনেক বিলাসবহুল রেস্টুরেন্ট আছে যেখানে স্পেশাল ইফতারের আয়োজন করা হয়। তাছাড়া মসজিদগুলোতে থাকে ফ্রি ইফতারের ব্যবস্থা। সেখানেও সবাইকে ফ্রি খেজুর দেওয়া হয় ইফতারের জন্য।

ইফতারের টেবিলে থাকে বিভিন্ন ধরনের তাজা ফলের আধিক্য। স্থানীয় বাসাবাড়িতে তৈরি হয় বিভিন্ন রসালো ফলের শরবত। অত্যন্ত সহজলভ্য হওয়ায় উপবাস ভাঙতে বেশির ভাগ মানুষই বেছে নেন ডাবের পানি। তাছাড়া থাকে তরমুজ, আম, প্যাশন ফ্রুট ও আনারস। হরেক রকম ফল ও সবজি দিয়ে তৈরি সালাদ মালদ্বীপবাসীর বিশেষ পছন্দ।

ইফতারের টেবিলে আরও দেখতে পাওয়া যায় বোয়াকিবা নামক এক প্রকার মিষ্টি এবং হেদিকা নামের এক প্রকার নোনতা পিঠা।

রমজান মাসে রোজাদারদের জন্য কর্মঘণ্টা কমিয়ে আনা হয়। তাছাড়া সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পাবলিক প্লেসে বা জনসম্মুখে খাদ্যগ্রহণ ও ধূমপান নিষিদ্ধ থাকে এ মাসে। এমনকি শিশু ও অসুস্থ ব্যক্তিরাও এ মাসে জনসম্মুখে খাবার গ্রহণ করেন না। রমজান মাসে মালদ্বীপে বেড়াতে আসা পর্যটকদেরও এই নিয়ম মেনে চলতে হয়। 

রমজান মাস শেষে চলে আসে মুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে বড় দু’টি ধর্মীয় উৎসবের একটি ঈদুল ফিতর। তাই রমজান মাস জুড়েচলে ঈদের কেনাকাটা। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৮ ঘণ্টা, জুন ০৩, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

হোসেনপুরে ৯ ইজিবাইক চালকের কারাদণ্ড
নাজমুল হুদার দল নিবন্ধন নিয়ে হাইকোর্টের রুল
নির্বাচনের আগেই ১০০০ ফার্মাসিস্ট নিয়োগ
ডিমলায় পুকুর থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার
খুলনায় আবারও ইয়াবাসহ পুলিশ আটক