Alexa

কুকুরের ৫ বিস্ময়কর ক্ষমতা

ইচ্ছেঘুড়ি ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী ছবি

ঢাকা: বলা হয়, মানুষের সবচেয়ে ভালো বন্ধু কুকুর। অনেক অনেক বছর আগে এরা বন-জঙ্গল ছেড়ে মানুষের সঙ্গে বসবাস করতে শুরু করে। নিজেদের বিভিন্ন ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে সাহায্য করে মানুষকে। 

তোমরা যারা কুকুর পোষো তারা কুকুরের অসাধারণ ক্ষমতা সম্পর্কে অল্প-বিস্তর পরিচিত। এসব ক্ষমতার কোনোটা যদি তোমার থাকতো, তবে তুমিও হয়ে যেতে পারতে সিনেমার সুপার হিরো। বাড়িয়ে বলছি না, সত্যিই। চলো জেনেই নেওয়া যাক, কুকুরের কিছু অসাধারণ ও বিস্ময়কর ক্ষমতা সম্পর্কে।

১. দিক নির্ণয় করতে কুকুরের কোনো কম্পাস দরকার হয় না। তারা অতিবেগুনি রশ্মি দেখতে পায়, একইসঙ্গে পৃথিবীর ম্যাগনেটিক ফিল্ড অনুভব করতে পারে। এছাড়াও তারা বাদুড়ের মতো কিছু বিশেষ শব্দ শুনতে পায়, যা মানুষের পক্ষে শোনা সম্ভব না। এসব কাজে লাগিয়েই তারা সঠিকভাবে দিক নির্ণয় করতে পারে।

২. তোমার যদি কোনো কারণে মন খারাপ থাকে, পোষা কুকুরটি কিন্তু গন্ধ শুকে ঠিকই তা বুঝে ফেলবে। তখন তোমার মন ভালো করার জন্য নানা প্রচেষ্টা চালাবে সে। এভাবে সে গন্ধের সাহায্যে দুষ্টু লোকদেরও শনাক্ত করতে পারে। গবেষকরা বলেন, কুকুর গন্ধের সাহায্যে ক্যানসারসহ মানুষের বেশ কিছু রোগের উপস্থিতি বুঝতে পারে।

৩. কুকুর ২৫০ রকমের শব্দ মনে রাখতে পারে, গুনতে পারে ১ থেকে ৫ পর্যন্ত। মজার বিষয় হলো, গবেষকদের মতে পূর্ণবয়স্ক কুকুরের বুদ্ধিমত্তা একটি দুই বছর বয়সী শিশুর সমান। এ হিসেবে দেখলে কুকুররা খুবই বুদ্ধিমান। বিশ্বের সবচেয়ে বুদ্ধিমান কুকুরটির নাম চেসার। সে ১০০০টিরও বেশি শব্দ জানে।

৪. মহাকাশে ভ্রমণ করা পৃথিবীর প্রথম স্তন্যপায়ী প্রাণীটি কুকুর। ১৯৫৭ সালে রাশিয়ান কুকুর লাইকা রকেটে চড়ে প্রথম মহাকাশ থেকে ঘুরে আসে। মহাকাশ গবেষকরা লাইকাকে এখনও হিরো হিসেবে দেখে।

৫. কুকুররা খুব অল্প বয়সেই পরিণত হয়ে ওঠে। মানুষ সাধারণত ১৫ বছর বয়সে শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে পূর্ণতা লাভ করে। কুকুররা তা লাভ করে মাত্র ২ বছর বয়সের মধ্যেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৬ ঘণ্টা, মার্চ ০৮, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

সিসিক নির্বাচন: আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় কামরান, নীরব আরিফ
সুধীন্দ্রনাথ দত্তের প্রয়াণ
পছন্দের পাত্রী পাবেন তুলা
পোল্যান্ড-কলম্বিয়া ম্যাচের একাদশ
রাখাইনে শান্তিরক্ষী পাঠানোর কথা ভাবছে না জাতিসংঘ