Alexa

ভাঙ্গা হচ্ছে ‘অশুচি’ নারীদের `নির্বাসন ঘর'

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নির্বাসন ঘরের সামনে এক নির্বাসিত ‍নারী। ফটো

ঢাকা: নারীদের বন্দিশালা হিসেবে বিবেচিত অন্তত ৪ ডজন ‘নির্বাসন ঘর (Chhaupadi shed)’ মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে নেপালের পশ্চিম-দক্ষিণাঞ্চলীয় ভারত সীমান্তবর্তী বেডকোটের কাঞ্চনপুর এলাকায়। ঋতুমতী হওয়ার বা সন্তান জন্ম দেওয়ার পর নারীদের অশুচি জ্ঞান করে এসব ঘরে নির্বাসন দেওয়া হয়ে থাকে।

লোকালয় থেকে দূরে খড়, বাঁশ, মাটি বা আলগা পাথর সাজিয়ে গড়া চৌচালা ও দোচালা আকৃতির এসব কাঁচা ঘরে নির্বাসিত নারীদের ওপর রাতের আঁধারে নির্যাতন নৈমিত্তিক ঘটনা। খাবার-দাবারের সরবরাহ অপর্যাপ্ত। উপরন্তু এসব ঘরে যথাযথ চিকিৎসা সেবার অভাবে প্রতিবছর শত শত নারীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে থাকে।

ভাঙ্গা হচ্ছে নির্বাসন ঘর। ফাইল ফটো সার্বিক বিবেচনায় তাই হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রাচীন এই রীতি নিষিদ্ধ করে দেয় নেপাল সরকার। তারপরও  প্রত্যন্ত এলাকায় এমন অমানবিক নির্বাসনের চল রয়েছে। তাই নিষিদ্ধ এই চর্চার বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে কাঞ্চনপুরের স্থানীয় প্রশাসন ও এনজিও।

স্থানীয়দের অনেকেই শামিল হয়েছেন এমন অমানবিক নির্বাসন বিরোধী প্রচারণায়।

পর্যায়ক্রমে সব ‘নির্বাসন ঘর’ উচ্ছেদ করা হবে বলে জানিয়ে স্থানীয় প্রশাসন বলেছে, অতীতেও এসব ঘরে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হলেও কুসংস্কারের চর্চা বন্ধ করা যায়নি। এই অমানবিক চর্চা বন্ধ করতে সবাইকে সচেতন হতে হবে। 

বাংলাদেশ সময়: ১২১৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭
জেডএম/

চুনারুঘাটে মাটিচাপা পড়ে ২ নারী শ্রমিকের মৃত্যু
জাহিদ হাসান এবার গার্ড!
বৃহস্পতিবার শহীদ মিনারে গোলাম সারওয়ারকে শেষ শ্রদ্ধা
চট্টগ্রামে পুড়েছে শতাধিক কাঁচাঘর, দোকান
উসকানি-সহিংসতার অভিযোগের ৫১ মামলায় গ্রেফতার ৯৭