Alexa

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সামনে ব্যতিক্রমী কর্মসূচি

সৈয়দ আনাস পাশা, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শরনার্থী ও অভিবাসী সংকটের কার্যকর সমাধানের খোঁজে নিউইয়র্কে জাতিসংঘ অধিবেশনে বিশ্বনেতারা যখন ব্যস্ত ঠিক তখন এই ইস্যুর প্রতি বিশ্ববাসীর দৃষ্টি আকর্ষণের লক্ষ্যে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সামনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল এক ব্যতিক্রমী কর্মসূচি। 

লন্ডন: শরনার্থী ও অভিবাসী সংকটের কার্যকর সমাধানের খোঁজে নিউইয়র্কে জাতিসংঘ অধিবেশনে বিশ্বনেতারা যখন ব্যস্ত ঠিক তখন এই ইস্যুর প্রতি বিশ্ববাসীর দৃষ্টি আকর্ষণের লক্ষ্যে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সামনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল এক ব্যতিক্রমী কর্মসূচি। 

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) পার্লামেন্ট স্কয়ারে আড়াই হাজার লাইফ জ্যাকেট বিছিয়ে রেখে এই কর্মসূচি পালন করে ওয়ার্ল্ড ভিশন ইউকেসহ কয়েকটি সংগঠন। 

প্রতিটি লাইফ জ্যাকেট একজন করে সাগরে ডুবে যাওয়া শরনার্থীদের প্রতিনিধিত্ব করছে, এমনটিই জানান ব্যতিক্রমী এ কর্মসূচিটির উদ্যোক্তারা।

ইউকে'র মূখপাত্র হ্যানরি মাকিওয়া বাংলানিউজকে বলেন, এই প্রজন্মের সবচেয়ে বড় সংকটের প্রতি বিশ্বনেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্যই মূলত আমাদের এই কর্মসূচি। এই মুহূর্তে সবচেয়ে জরুরি হলো শরনার্থীদের সাহায্যে নেতাদের এমন একটি যৌথ সিদ্ধান্ত যা হবে টেকসই ও দীর্ঘস্থায়ী। 

তিনি বলেন, বিশেষ করে শিশু শরনার্থীদের জন্য একটি নিরাপদ আবাস খুঁজে বের করতে বিশ্ব নেতাদের এমন সিদ্ধান্ত এখন সময়ের দাবি।

এদিকে শরনার্থী সমস্যার একটি কার্যকর ও দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের পন্থা বের করতে বিশ্ব নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ৫৩ রাষ্ট্রভুক্ত সংস্থা কমনওয়েলথের মহাসচিব পেট্রিশিয়া স্কটল্যান্ড।

রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) নিউ ইয়র্ক জাতিসংঘ সদর দফতরে ‘মাইগ্রেশন ইন দ্যা কমনওয়েলথ: ইন্টারন্যাশনাল মুভমেন্ট অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস-চ্যালেঞ্জ অ্যান্ড অপরচুনিটিজ' শীর্ষক সেশনে এই আহ্বান জানান তিনি। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ, কেনিয়া ও টঙ্গাসহ সংস্থাভুক্ত অন্যান্য দেশের প্রতিনিধিরা। 

কমনওয়েলথ মহাসচিব বলেন, আন্তর্জাতিক মাইগ্রেশন একটি জটিল ইস্যু। এই ইস্যু তৈরির পেছনে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক,  সহিংস চরমপন্থা, সন্ত্রাস ও জলবায়ু পরিবর্তন জনিত সংকট কাজ করে। এই সংকট থেকে বেরিয়ে আসতে প্রয়োজন পরিকল্পিত মাইগ্রেশন আইন ও শাসন কাঠামো। 

কমনওয়েলথ সচিবালয়ের এক পরিসংখ্যানে জানা যায়,  উন্নয়নশীল দেশগুলো মোট শরনার্থীর শতকরা ৮০ ভাগের আশ্রয়দাতা। এরমধ্যে  সবচেয়ে বেশি শরনার্থীর আশ্রয়দাতা দেশ হলো পাকিস্তান, যার সংখ্যা প্রায় ১.৭ মিলিয়নেরও বেশি।

বাংলাদেশ সময়: ০৭৪৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬
আরএইচএস
 

সীমান্ত গ্রাম থেকে ২ লাখ রুপি মূল্যের গাঁজা জব্দ
ইমরান এইচ সরকারকে যুক্তরাষ্ট্র যেতে বাধার অভিযোগ
অনাস্থা ভোটে মোদীর জয়
স্ত্রীর চিকিৎসা করাতে এসে দুর্ঘটনায় স্বামীর মৃত্যু
পাঁচবিবিতে সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রের নিহত