Alexa

প্রধানমন্ত্রিত্ব নিতে আগ্রহী উন্নতির নায়ক মাহাথির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নির্বাচনে জয়ের পর গণমাধ্যমের সামনে ড. মাহাথির মোহাম্মদ। ছবি: সংগৃহীত

মালয়েশিয়ার সপ্তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন দেশটির উন্নয়নের ধারক ও স্বপ্নদ্রষ্টা ড. মাহাথির মোহাম্মদ। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার আশা প্রকাশ করে তিনি বলেছেন, আমি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আসীনের জন্য আশাবাদী। 

আশাবাদী তিনি হতেই পারেন; যে মাহাথিরের হাত ধরে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার পিছিয়ে পড়া মালয়েশিয়ায় আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের বিপ্লব ঘটেছে, সেই ব্যক্তির হাত ধরে দেশটিতে ঘটে গেলো যে আরেক বিপ্লব। সুদীর্ঘ ৬০ বছরের শাসক-জোটের পতন ঘটালেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১০ মে) স্থানীয় সময় বিকেল ৫টায় দেশটির নতুন মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মাহাথিরের নেতৃত্বাধীন জোটও তাকে সমর্থন দিয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে ড. মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, আমরা পরিষ্কার করতে চাই, আজকে (বৃহস্পতিবার) সরকার গঠন করার জন্য বাধ্যবাধকতা ও তৎপরতা রয়েছে। 

আরও পড়ুন>>
** 
দুর্নীতিবাজ নাজিবকে এবার কাঠগড়ায় নেবেন মাহাথির

‘আমাদের আজই সরকার গঠনের প্রয়োজন। কারণ এখন মালয়েশিয়ায় কোনো সরকার নেই। দেশটি সরকারহীনভাবে চলছে।’

তিনি বলেন, পাকাতান হারাপান (পিএইচ) ও পাত্রি ওয়ারিসান সাবাহ এবং অন্যান্য জোট বা দল থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরাও আমাকে ফেডারেল সরকার (যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকার) গঠনের জন্য সমর্থন দিয়েছেন। 

‘এটা কোনো দলের সমর্থনে নয়। যতদিন অধিকাংশ সংসদ সদস্যদের সমর্থন রয়েছে, ততদিন আমি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার অধিকার রাখি,’ বলেন মালয়েশিয়ার উন্নয়নের এ নায়ক। 

ড. মাহাথির বলেন, বারিসান নাসিওনাল (বিএন) চেয়ারম্যান দাতুক সেরি নাজিব তুন রাজাকের প্রধানমন্ত্রীর সময় ‘শেষ’।   

‘সংসদ সদস্যরা পাকাতান হারাপান থেকে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী মনোনীত করেছেন, সেই প্রার্থী হিসেবে আপনারা ড. মহাথির মোহাম্মদের নাম শুনতে পাচ্ছেন,’ অনেকটা স্বভাবগত হাসিমুখেই বলে চলেন ড. মাহাথির।  

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, পাকাতান হারাপান জোটের সব দলসহ সাবাহর অন্যান্য দলও ফেডারেল সরকার গঠনে সমর্থন দিয়েছে। সমর্থনের একটি ঘোষণা স্বাক্ষরের পর রাজপ্রাসাদে পাঠানো হবে। 

ড. মাহাথির আশা করেন, সব দলের সমর্থনে ফেডারেল সরকার গঠনের পরপরই নতুন প্রধানমন্ত্রী শপথ গ্রহণ করবেন। আমাদের প্রয়োজন যত সম্ভব কোনো দেরি না করে আজই সরকার গঠন করা। 

‘আমাদের করার মতো অনেক কাজ রয়ে গেছে। দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্র জগাখিচুড়ি হয়ে আছে, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এটা আমাদের সরানো প্রয়োজন।’

শপথের পরপরই সরকারের প্রাথমিক কার্যক্রম শুরুর জন্যে অতি শিগগির সংসদ ডাকা হবে বলে জানান বিশ্বের সবচেয়ে বয়সী নেতা ড. মাহাথির। 

বুধবার (০৯ মে) মালয়েশিয়ার ১৪তম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ ক্ষমতাসীন জোট বারিসান ন্যাশনাল (বিএন)-কে বিপুল ব্যবধানে পরাজিত করেন। এক সময় এই জোটের হয়ে তিনি ২২ বছর কঠোর হাতে দেশটি শাসন করেন। 

দেশটির নির্বাচন কমিশনের আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষিত ফলাফলে ৯২ বছর বয়সী মাহাথিরের জোট দেশটির পার্লামেন্টে ২২২টি আসনের মধ্যে পেয়েছে ১১৫টি আসন। যেখানে সরকার গঠন করতে ১১২টি আসনের প্রয়োজন। বিপরীতে বিএন জোট পেয়েছে ৭৯টির মতো আসন।

ক্ষমতায় থাকালে দেশটিতে অর্থনৈতিক উন্নয়নের জোয়ার সৃষ্টি করেন, যা দিয়ে মালয়েশীয়দের মনে জায়গা করে নেন তিনি। তাই হয়তো আবারও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাকেই চাইছেন মালয়রা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৫ ঘণ্টা, মে ১০, ২০১৮
এমএ/

কালুরঘাট সেতু থেকে নদীতে ঝাঁপ 
ব্যাংকিং সেবার আওতায় চসিকের ৯০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
‘আমরা কাউকে হত্যা করতে চাই না’
না’গঞ্জে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে দুই ভাই দগ্ধ
আখাউড়ায় ১৩ লাখ টাকাসহ ৩ ছিনতাইকারী আটক