Alexa

৬ ডিসেম্বর মুক্ত হয় আখাউড়া

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

৬ ডিসেম্বর আখাউড়া মুক্ত দিবস। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা ১৯৭১ সালের এই দিনে মুক্ত হয়। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ৬ ডিসেম্বর আখাউড়া মুক্ত দিবস। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা ১৯৭১ সালের এই দিনে মুক্ত হয়। 

স্বাধীনতা যুদ্ধে পূর্বাঞ্চলের প্রবেশদ্বার বলে খ্যাত আখাউড়ার মাটিতেই শুয়ে আছেন বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামালসহ অসংখ্য মুক্তিযোদ্ধা।

দিবসটি পালন উপলক্ষে  ‘আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমিটি’র উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। কর্মসূচিগুলোর মধ্যে রয়েছে পতাকা উত্তোলন, আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা। এতে সবাইকে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, একাত্তর সালের ৩০ নভেম্বর ও ১ ডিসেম্বর উপজেলার আজমপুর ও রাজাপুর এলাকায় পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর সঙ্গে মুক্তিবাহিনীর যুদ্ধ হয়। এরপর ৩ ডিসেম্বর হওয়া যুদ্ধে হানাদার বাহিনীর ১১ সৈন্য নিহত ও মুক্তিবাহিনীর দু’জন শহীদ হন। ৪ ডিসেম্বর মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনী মিলে আখাউড়ায় আক্রমণ করে। ওই দিন আজমপুরে শহীদ হন লেফটেন্যান্ট ইবনে ফজল বদিউজ্জামান। ৫ ডিসেম্বর সারাদিন ও রাতে যুদ্ধের পর ৬ ডিসেম্বর আখাউড়া শত্রুমুক্ত হয়। 

বাংলাদেশ সময়: ১১১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৬
এসআই

মা মরক্কান বাবা পর্তুগিজ, কার পক্ষে ছেলে?
৬ প্যাথলজিস্টের অভাবে দিনে ৩০ লাখ টাকা হাতছাড়া!
বাগেরহাটে ৩ শিক্ষককে বহিষ্কারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি
সিঙ্গাইরে পিকআপ-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ 
আমানতের সুদ না বাড়ানোর নির্দেশ অর্থমন্ত্রীর